প্রহসনের নির্বাচনে যাব না

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১৭ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেছেন, আমরা এক দুঃসময় অতিক্রম করছি। কারণ দেশ চালাচ্ছে লাইসেন্সবিহীন সরকার। যে সরকার জনগণের ভোটে নির্বাচিত নয়, সেই সরকারের লাইসেন্স আছেÑ আমরা এমনটা বলতে

পারি না।

ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিতে গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে জাতীয় গণতান্ত্রিক পার্টির (জাগপা) ‘খালেদা জিয়ার মুক্তি ও গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার’ শিরোনামে এক আলোচনাসভায় তিনি এ কথা বলেন।

জাগপার সহ-সভাপতি ব্যারিস্টার তাসমিয়া প্রধানের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য দেন এনপিপির চেয়ারম্যান ফরিদুজ্জামান ফরহাদ, জাগপার সাধারণ সম্পাদক খন্দকার লুৎফর রহমান, বাংলাদেশ ন্যাশনাল আওয়ামী পার্টি-ন্যাপের মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভূঁইয়া প্রমুখ।

নজরুল ইসলাম খান বলেন, আমরা নির্বাচনে যেতে চাই। তবে এই সরকারের অধীনে নির্বাচনের নামে সিটি করপোরেশনের মতো কোনো প্রহসনে যেতে চাই না। কারণ নির্বাচনে যদি মানুষ ভোট দেওয়ার সুযোগ না পায় তা হলে জনগণ যে পরিবর্তন চায়, সেটা তারা করতে পারবে না। কাজেই নির্বাচনের নামে কোনো প্রহসনে বিএনপি অংশ নেবে না।

নজরুল ইসলাম আরও বলেন, বাংলাদেশের মানুষ ফুঁসছে। তারা পরিবর্তনের একটা সুযোগ চায়। অনেকে আমার কাছে প্রশ্ন করেনÑ আপনারা নির্বাচনে যাবেন নাকি? আমরা যদি নির্বাচনে না-ই যেতে চাই, তাহলে নিরপেক্ষ নির্বাচন কেন চাচ্ছি, নির্বাচন কমিশনের পুনর্গঠন কেন চাচ্ছি, নির্বাচনের সময় সেনা মোতায়েন কেন চাচ্ছি? নির্বাচনে যাব বলেই তো এসব চাই।

বিএনপির এই নীতিনির্ধারক বলেন, আমরা আগামী নির্বাচনে যাব। আশা করছি, তার আগে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া মুক্তি পাবেন। তাকে নিয়েই নির্বাচনে যাব। কিন্তু তার মুক্তির জন্য আমাদের সবাইকে রাজপথে কঠোর আন্দোলন করতে হবে।

তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর বিভিন্ন বক্তব্যের কড়া সমালোচনা করে নজরুল ইসলাম খান বলেন, ইনু সাহেব জিয়া পরিবারের সমালোচনা করতে বেশি পছন্দ করেন। তা হলে সরকার ইনুকে বানাতে পারেন জিয়া পরিবারের সমালোচনা বিষয়ক মন্ত্রী। তিনি (তথ্যমন্ত্রী) বলেছেন, বিএনপি-জামায়াতকে নিশ্চিহ্ন করতে হবে। মন্ত্রীদের এ কেমন অগণতান্ত্রিক ও সন্ত্রাসী ভাষা!

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে