বিএনপির কাছে গুরুত্ব হারাচ্ছে জামায়াত

  নজরুল ইসলাম

১৯ আগস্ট ২০১৮, ০০:০০ | আপডেট : ১৯ আগস্ট ২০১৮, ১২:৪৯ | প্রিন্ট সংস্করণ

সিলেট সিটি করপোরেশন নির্বাচনে সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে মেয়রপ্রার্থী দেওয়ায় জোটের মধ্যে চাপে রয়েছে জামায়াত। আগের মতো গুরুত্ব পাচ্ছে না বিএনপির কাছে। জাতীয় ঐক্য প্রক্রিয়া এবং সরকারবিরোধী আন্দোলনের কর্মপন্থা তৈরিতে তাদের কোনো মতামতও নেওয়া হয়নি। জোটে জামায়াত থাকবে নাÑ এমনটি মাথায় রেখেই কৌশল ঠিক করছে বিএনপি নেতৃত্বাধীন ২০ দল।
জোট নেতারা বলছেন, বিগত সময়ের নির্বাচন-আন্দোলনসহ গুরুত্বপূর্ণ ইস্যুতে বিএনপির ওপর প্রভাব বিস্তারের চেষ্টা করত জামায়াত। এক সময় দলটির মধ্যে এমন ভাবনা চলে আসে, তাদের ছাড়া বিএনপি কোনোভাবেই চলবে না। জোটের দ্বিতীয় শক্তিশালী দল হওয়ায় বিএনপিও তাদের প্রস্তাবগুলোকে প্রাধান্য দিত। তবে সিলেট সিটি নির্বাচনের পর জামায়াতের গ্রহণযোগ্যতা আর আগের মতো নেই। এ বিষয়ে জানতে  চাইলে সরাসরি উত্তর না দিয়ে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বরচন্দ্র রায় আমাদের সময়কে বলেন, সিলেট সিটি নির্বাচনের পর বিএনপির জনপ্রিয়তা বোঝা গেছে। জামায়াতের প্রার্থী দেওয়া, নানাভাবে আমাদের নেতাকর্মীদের ওপর সরকারের নির্যাতন ও ভোট ‘চুরি’র পরও ধানের শীষের মেয়রপ্রার্থী জয়লাভ করেছে। এতে করে সামনের যে কোনো সিদ্ধান্ত নিতে আমাদের জন্য সহজ হলো।
অবশ্য জামায়াতের নায়েবে আমির মিয়া গোলাম পরওয়ার বলছেন কৌশলী কথা। আমাদের সময়কে তিনি বলেন, ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপটে বিএনপির নেতৃত্বে জোট হয়েছিল। সেই প্রয়োজনীয়তা এখনো শেষ হয়ে যায়নি। সিলেট সিটি নির্বাচনে ২০-দলীয় জোটের কোনো মেয়রপ্রার্থী ছিল না। আরিফুল হক চৌধুরী ছিলেন বিএনপির প্রার্থী। ফলে এর কোনো প্রভাব আগামী দিনের আন্দোলন সংগ্রামে পড়বে না।
জামায়াত নেতারা বলছেন, বিএনপির নেতৃত্বে সামনের আন্দোলনের জন্য তারাও প্রস্তুতি নিচ্ছেন। ২০-দলীয় জোট যে কর্মসূচি দেবে তা সফল করতে সর্বশক্তি নিয়োগের সিদ্ধান্ত হয়েছে। জামায়াতের মূল শক্তি ছাত্র ও শ্রমিক সংগঠনকে প্রস্তুতি নিতে সংশ্লিষ্ট নেতাদের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এরই মধ্যে। পাশাপাশি জামায়াতের বিভিন্ন ইউনিটকে সাংগঠনিকভাবে প্রস্তুত করা হচ্ছে।
বিএনপি নেতারা অবশ্য বলছেন, জামায়াতের গুরুত্ব আগের মতো নেই। যারা বলতেনÑ এ দলটি ছাড়া বিএনপির চলবে না, সিলেট নির্বাচনের পর তাদের মুখ বন্ধ হয়েছে। তাই সম্প্রতি দলের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাদের বৈঠকে দাবি তোলা হয়েছে, জামায়াতকে জোট থেকে বের করে দেওয়া হোক। তবে বিএনপির স্থায়ী কমিটির একাধিক নেতা মনে করেন, এখনই জোট থেকে বের করে দিলে উল্টো শত্রæ হয়ে দাঁড়াবে যুদ্ধাপরাধের দায়ে অভিযুক্ত দলটি। সরকারের সহযোগিতা নিয়ে বিএনপির ক্ষতি করবে। তবে নিজে থেকে যদি চলে যায়, ধরে রাখার কোনো চেষ্টাই করা হবে না।
জোট থেকে সরে দাঁড়াবেন কিনা, জানতে চাইলে মিয়া গোলাম পরোয়ার বলেন, আমরা আন্দোলন ও নির্বাচনের পথে হাঁটছি। এ জন্য প্রস্তুতিও চলছে। তবে আন্দোলন কখনো দিনক্ষণ ঠিক করে হয় না। সিলেট সিটি নির্বাচন এ পথ চলায় কোনো প্রভাব পড়বে না।
জামায়াত নেতাদের দাবি, সরকারের আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তৎপরতা এবং মামলার পাহাড়ে চাপা পড়ে দলের নেতাকর্মীরা আজ ঘরছাড়া। কেউ কেউ গ্রেপ্তার হয়ে কারাগারে। তাই জামায়াত প্রকাশ্যে কোনো সাংগঠনিক তৎপরতা চালাতে পারছে না। দলের একটি সূত্র অবশ্য বলছে, হামলা-মামলা থেকে রেহাই পেতে একটি অংশ সরকারের সঙ্গে গোপন সম্পর্ক গড়েছে। যদিও এ নিয়ে খোদ দলের মধ্যেই রয়েছে দ্ব›দ্ব। গত কাউন্সিল থেকে নেতাকর্মীরা বিভক্ত হয়ে পড়েছেন দুই গ্রæপে। একটি পক্ষের দাবি, এমনিতেই দলের শক্তি কমে যাচ্ছে। এভাবে চললে আরও ক্ষতি হবে। তাই সরকারের সঙ্গে সম্পর্ক তৈরি করে চলাটাই হবে বুদ্ধিমানের কাজ।
সংশ্লিষ্ট সূত্র আরও জানায়, যারা সিলেট সিটি নির্বাচনে বিএনপির বিরুদ্ধে ‘জোরপূর্বক’ মেয়রপ্রার্থী দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তারা ভোটের পর দলীয় বৈঠকে প্রশ্নের মুখোমুখি হয়েছেন। বিশেষ করে জামায়াতের সেক্রেটারি জেনারেল ডা. শফিকুর রহমান ও তার অনুসারীরা এখন প্রচÐ চাপে রয়েছেন দলের মধ্যেই। এ প্রসঙ্গে জামায়াতের এক নেতা জানান, আমিরসহ নীতিনির্ধারণী ফোরাম জাতীয় নির্বাহী পরিষদে মোট ১৯ জন রয়েছেন। এর মধ্যে সেক্রেটারি জেনারেলসহ ছয়জন একদিকে, ১২ জন অন্যদিকে। দলের মধ্যে এই ছয়জন সরকারের লোক হিসেবেই পরিচিত। তাদের ‘বাড়াবাড়িতে’ই ২০-দলীয় জোটের সিদ্ধান্তের বাইরে গিয়ে সিলেটে মেয়রপ্রার্থী দেওয়া হয়েছিল। এ কারণে মাঠপর্যায়ের নেতাকর্মীদের সঙ্গে সেক্রেটারি জেনারেলের দূরত্বও রয়েছে।
এদিকে বিএনপির নীতিনির্ধারণী পর্যায়ের দুই নেতা অবশ্য বলেন, জামায়াত জোটে থাকবে নাÑ এমনটা মাথায় রেখেই ঐক্য প্রক্রিয়া ও আন্দোলনের ছক তৈরি হচ্ছে। তারা থাকলে থাকবে, না থাকলেও যাতে সমস্যায় পড়তে না হয়, সেই প্রস্তুতি রাখা হয়েছে।

 

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে