আন্দোলনকারীদের বিক্ষোভ

কোটার প্রজ্ঞাপন ছাড়া বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি না মানার ঘোষণা

  বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিবেদক

১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | আপডেট : ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:৫৭ | প্রিন্ট সংস্করণ

পুরোনো ছবি
সরকারি চাকরিতে দ্রুত কোটা সংস্কারের প্রজ্ঞাপন জারির দাবি জানিয়েছেন কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীরা। দাবি না মানলে কঠোর আন্দোলনের ঘোষণা দেওয়া হবে বলে জানান শিক্ষার্থীরা। গতকাল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) টিএসসিতে বিক্ষোভ মিছিলপরবর্তী এক সমাবেশে তারা এ কথা জানান। প্রজ্ঞাপন ছাড়াই ৪০তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করায়, তা মানা হবে না বলেও ঘোষণা দেওয়া হয়।

আন্দোলনকারীরা সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের সায়েন্স লাইব্রেরির সামনে থেকে প্রথমে বিক্ষোভ মিছিল বের করেন। মিছিলটি শাহবাগের পাবলিক লাইব্রেরি হয়ে টিএসসি

ঘুরে ঢাবির কেন্দ্রীয় লাইব্রেরির সামনে যায়। সেখানে কোটা সংস্কারের প্রজ্ঞাপন ছাড়াই ৪০তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি ছাত্রসমাজ মানে না বলেও তারা স্লোগান দিতে থাকেন। পরে সেখান থেকে আবারও মিছিল বের করে আন্দোলনকারীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের কলাভবন, ব্যবসায় শিক্ষা অনুষদ, মুহসীন হল, ভিসি চত্বর হয়ে টিএসসিতে গিয়ে সংক্ষিপ্ত সমাবেশ করে। বিক্ষোভ মিছিলে তিন শতাধিক শিক্ষার্থী অংশ নেন।

সমাবেশে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক নূরুল হক নূর বলেন, ‘যৌক্তিক দাবি সত্ত্বেও কোটা সংস্কার আন্দোলনকারী ছাত্রদের ওপর হামলা করা হয়েছে এবং তাদের নামে মামলা দেওয়া হয়েছে। আমরা কোটা বাতিল চাইনি, প্রধানমন্ত্রীই তা ঘোষণা দিয়েছেন। তিনি চাইলে কোটা বাতিল করতে পারেন।’ তবে সংস্কার করলে পাঁচ দফার আলোকে করতে হবে বলে জানান নূরুল হক।

যুগ্ম আহ্বায়ক মুহম্মদ রাশেদ খান বলেন, ‘আজ থেকে ছয় মাস আগে মহান সংসদে দাঁড়িয়ে প্রধানমন্ত্রী আমাদের কোটা সংস্কারের যে দাবি সেটি মেনে নেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন। কিন্তু আজ দীর্ঘ ছয় মাস পেরিয়ে গেলেও তার সেই ঘোষণা বাস্তবায়ন হয়নি। আমরা চাই অতিদ্রুত জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়কে দায়িত্ব দেওয়া হোক, যাতে ছাত্র সমাজের দাবি মেনে নেওয়া হয়। আর যতদিন না পর্যন্ত আমাদের দাবি মেনে নেওয়া হবে, ততদিন এ আন্দোলন অব্যাহত থাকবে। ছাত্রসমাজ দেখিয়ে দিবে কীভাবে রাজপথে দাবি আদায় করতে হয়।’

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে