নিরাপদ সড়ক দিবস কাল

তোড়জোড় কেবল দুর্ঘটনা ঘটলেই

  নিজস্ব প্রতিবেদক

২১ অক্টোবর ২০১৮, ০০:০০ | আপডেট : ২১ অক্টোবর ২০১৮, ০০:৫৪ | প্রিন্ট সংস্করণ

প্রতীকী ছবি
কোনোভাবেই নিরাপদ হচ্ছে না সড়ক। দুর্ঘটনায় হতাহত যেন নিত্য ঘটনা। দুর্ঘটনা বাড়লেই কেবল চলে তোড়জোড়, আলোচনা-সমালোচনা। তড়িঘড়ি করে আসে কিছু সিদ্ধান্তও। সময় বয়ে গেলেই আবার সব ভুলে যাওয়া। এমন বাস্তবতায় আগামীকাল পালিত হবে নিরাপদ সড়ক দিবস।

পরিবহন বিশেষজ্ঞরা জানান, সড়ক নিরাপত্তায় সিদ্ধান্তের কমতি নেই। কেবল বাস্তবায়নেরই অভাব। দুর্ঘটনায় প্রাণহানি বাড়লে পুরনো সিদ্ধান্তগুলোই নতুন করে নেয় সরকারের বিভিন্ন সংস্থা। কয়েকদিন গেলে সব আগের মতোই। এভাবেই চলছে দেশের পরিবহন খাত। আর এসব কারণেই মহাসড়কে দ্রুতগতিতে যান চলাচল ঠেকানো যাচ্ছে না। লাইসেন্স ছাড়া গাড়ি চালানোও যেন এ দেশে স্বাভাবিক ঘটনা। ফলে প্রাণঘাতী হয়ে উঠেছে সড়ক।

তবে এ আলোচনা-সমালোচনার মধ্যেই সড়কে অবৈধ যান চলাচল বন্ধ করা, মহাসড়কে ধীরগতির যানবাহন চলতে না দেওয়া, ৮০ কিলোমিটারের বেশি গতিতে গাড়ি চালানো নিষিদ্ধ করাসহ ১৯ দফা সিদ্ধান্ত হয় সড়ক নিরাপত্তা উপদেষ্টা কাউন্সিলের ৪২তম সভায়। যদিও এর অধিকাংশ আগের সভাতেও নেওয়া হয়েছিল, কিন্তু বাস্তবায়ন হয়নি। জাতীয় সড়ক নিরাপত্তা কাউন্সিল ছয় বছর আগেই এসব সুপারিশ করেছিল।

জানা গেছে, ২০১২ সালের জুলাইয়ে জাতীয় সড়ক নিরাপত্তা কাউন্সিলের বিশেষজ্ঞ উপকমিটি স্বল্প, মধ্য ও দীর্ঘমেয়াদি ৮৬টি সুপারিশ করে। ছয় বছরে মাঠপর্যায়ে তার একটিও বাস্তবায়ন হয়নি।

বিশেষজ্ঞরা জানান, রাজধানীতে অনিরাপদ সড়কের অন্যতম প্রধান কারণ যাত্রী পেতে বাসে বাসে রেষারেষি। এর অন্যতম কারণ ঢাকার প্রায় বাসই চলে দৈনিক চুক্তিতে। পাল্লাপাল্লির কারণেই গত ২৯ জুলাই জাবালে নূর বাসের চাপায় নিহত হন দুই কলেজ শিক্ষার্থী। পরে তাদের সহপাঠীরা রাস্তায় নেমে এলে নিরাপদ সড়কের আন্দোলন ছড়িয়ে পড়ে সারাদেশে। আন্দোলনের মধ্যেই বাস মালিকরা গত ৯ আগস্ট ঘোষণা দেন আর চুক্তিতে বাস চলবে না। চুক্তিতে চললে সমিতি থেকে বহিষ্কার করা হবে। এ নিয়ে সড়ক নিরাপত্তা উপদেষ্টা পরিষদও সিদ্ধান্ত জানায়, চালককে চুক্তিতে বাস দিতে পারবেন না মালিকরা। চালকরা হবেন বেতনভুক্ত। কিন্তু সরেজমিনে দেখা গেছে, এখনো আগের নিয়মেই চলছে রাজধানীর বাস। কেউ জানে না, কবে হবে নিরাপদ সড়ক, কবে হবে দেশে আইনের বাস্তব শাসন।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে