ডিসিদের রিটার্নিং কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগের বৈধতা প্রশ্নে রুল

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১৩ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

নির্বাচনে বিভাগীয় কমিশনার ও জেলা প্রশাসকদের (ডিসি) রিটার্নিং কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগ দেওয়া কেন অবৈধ ঘোষণা করা হবে নাÑ এ মর্মে রুল জারি করেছেন হাইকোর্ট। আগামী তিন সপ্তাহের মধ্যে জনপ্রশাসন সচিব, আইন সচিব, প্রধান নির্বাচন কমিশনারকে এ রুলের জবাব দিতে বলা হয়েছে। গতকাল বুধবার এক রিট আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে বিচারপতি সৈয়দ রেফাত আহমেদ ও বিচারপতি মো. ইকবাল কবিরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ এ আদেশ দেন। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন

অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে আলম ও রিটকারী পক্ষে ব্যারিস্টার সাকিব মাহবুব শুনানি করেন।

আদেশের পর অ্যাটর্নি জেনারেল মাহবুবে

আলম বলেন, আদালত ডিসিদের রিটার্নিং কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালনের ওপর কোনো স্থগিতাদেশ দেয়নি। অর্থাৎ নির্বাচনে তাদের রিটার্নিং কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালনে কোনো বাধা নেই। তবে জারিকৃত রুলের ওপর চূড়ান্ত শুনানির পর যে রায় হবে, তাতে কোনো নির্দেশনা থাকলে তা ভবিষ্যৎ নির্বাচনের ক্ষেত্রে দৃষ্টান্ত হয়ে থাকবে।

এর আগে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনের জন্য বিভাগীয় কমিশনার ও ডিসিদের পরিবর্তে ইসির আওতাভুক্ত জেলা নির্বাচন কর্মকর্তাদের রিটার্নিং কর্মকর্তা হিসেবে নিয়োগের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট করেন সুপ্রিমকোর্টের আইনজীবী আবদুর রহমান। রিটে বলা হয়, সংসদ নির্বাচনে ৬৪ জেলার ডিসিদের এবং ঢাকা ও চট্টগ্রামের বিভাগীয় কমিশনারকে রিটার্নিং কর্মকর্তার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। কিন্তু গণপ্রতিনিধিত্ব আদেশ (আরপিও) অনুযায়ী ডিসিদের নির্বাচন পরিচালনাকারী হওয়ার সুযোগ নেই। এতে সাংবিধানিক বাধা রয়েছে। তারা জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অধীনে কাজ করে থাকেন। বরং বিভাগীয় কমিশনার ও ডিসিরা সরাসরি নির্বাচন পরিচালনায় অংশ না নিয়ে সহায়ক শক্তি হিসেবে কাজ করতে পারেন।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে