তারেকের বিরুদ্ধে আরও ৯ মামলা নিষ্পত্তির অপেক্ষায়

দুই মামলায় ১৭ বছরের কারাদ-, ২২ কোটি টাকা জরিমানা

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার ছেলে তারেক রহমানের বিরুদ্ধে অবৈধ সম্পদ অর্জন, গ্রেনেড হামলা, মানহানি ও রাষ্ট্রদ্রোহসহ মোট ৯টি মামলা চলমান। এ ছাড়া অর্থ পাচার ও অর্থ-আত্মসাতের মামলার রায়ে তাকে মোট ১৭ বছরের কারাদ- দেওয়া হয়েছে। একইসঙ্গে তাকে ২২ কোটি টাকা জরিমানা করেছেন আদালত। গতকাল বুধবার জাতীয় সংসদে সংরক্ষিত নারী আসনের সংসদ সদস্য বেগম ফজিলাতুন নেসা বাপ্পির প্রশ্নের জবাবে এ তথ্য জানান আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক।

মন্ত্রী জানান, ১/১১ পরবর্তী সেনাসমর্থিত সরকারের আমলে ২০০৭ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর অবৈধ সম্পদ অর্জনের দায়ে তারেক রহমান, তার স্ত্রী ডা. জোবায়দা রহমান ও শাশুড়ি সৈয়দা ইকবাল মান্দ বানুকে আসামি করে কাফরুল থানায় মামলা (নং-৫২/২০০৭) করা হয়। ওই মামলায় দাখিল করা অভিযোগপত্রের বিরুদ্ধে ডা. জোবায়দা রহমান হাইকোর্ট বিভাগে দরখাস্ত করেন। হাইকোর্ট বিভাগ ওই দরখাস্ত খারিজ করে দেন। এই খারিজ আদেশের বিরুদ্ধে আপিল বিভাগে করা মিস পিটিশন (নং-৫১৬/২০১৭) এখন নিষ্পত্তির অপেক্ষায় আছে। এ ছাড়া দ্রুত বিচার ট্রাইব্যুনালে ২১ আগস্ট গ্রেনেড হামলার দুটি মামলা (নং-২৯/১১ ও ৩০/১১) চলছে।

ঢাকা মহানগর দায়রা জজ আদালতে চলছে ২০১৫ সালের ৮ জানুয়ারি তেজগাঁও থানায় দায়ের হওয়া মামলা (নং-১৩/২০১৫) থেকে উদ্ভূত রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা (১৫৫৮২/১৭)। এ ছাড়া ঢাকার সিএমএম কোর্টে রয়েছে ৫টি মানহানির মামলা (১৯৬/২০১৫, ৭২০/১৪, ৯৫৪/১৪, ৮৪১/১৪ ও ৬১৪/১৪)। এগুলোর মধ্যে একটিতে তারেকের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা ইস্যু করা হয়েছে।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
close