বিজিবির জন্য হেলিকপ্টার ক্রয়ের প্রস্তাব অনুমোদন

৪ হাজার কোটি টাকার ১৩টি ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন

  নিজস্ব প্রতিবেদক

০৯ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | আপডেট : ০৯ নভেম্বর ২০১৮, ০৯:১০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বাংলাদেশ বর্ডার গার্ডের (বিজিবি) জন্য দুটি হেলিকপ্টার ক্রয়ের প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি। এ ছাড়া বাংলাদেশ সরকার ও এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের অর্থায়নে সাসেক সড়ক সংযোগ প্রকল্পসহ ৪ হাজার ২২০ কোটি টাকা ব্যয়ে ১৩টি ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দিয়েছে সরকারি ক্রয়সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটি।

গতকাল সচিবালয়ে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের সম্মেলনকক্ষে কমিটির সভাপতি অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের সভাপতিত্বে এ সংক্রান্ত একটি বৈঠক অনুষ্ঠিত হয়।

বৈঠক শেষে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মোসাম্মৎ নাসিমা বেগম বলেন, বৈঠকে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) জন্য স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগ থেকে আসা জিটুজি (সরকার টু সরকার) পদ্ধতিতে রাশিয়া থেকে দুটি হেলিকপ্টার ক্রয়ের প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়। ৪১৭ কোটি ৮৪ লাখ টাকা ব্যয়ে হেলিকপ্টার দুটি সরবরাহ করবে জেএসসি রাশিয়ার হেলিকপ্টার্স কোম্পানি।

তিনি বলেন, বৈঠকে বাংলাদেশ সরকার ও এশীয় উন্নয়ন ব্যাংকের (এডিবি) অর্থায়নে সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তর কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন ‘সাসেক সড়ক সংযোগ প্রকল্প-২ এলেঙ্গা-হাটিকুমরুল-রংপুর মহাসড়ক চার লেনে উন্নীতকরণ’ শীর্ষক প্রকল্পের একটি প্যাকেজের ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এতে ব্যয় হবে ২ হাজার ১১০ কোটি ৮৫ লাখ টাকা। এ ছাড়া সরকার ৫৪ কোটি ৯৯ হাজার ব্যয়ে ৭ লাখ ৪০ হাজার ৬৪০টি কম্বল কেনার প্রস্তাবের অনুমোদন দিয়েছে। প্রতিটি কম্বলের সর্বনিম্ন দাম ধরা হয়েছে ৭৪১ টাকা থেকে ৭৪৪ টাকা। সর্বনিম্ন পাঁচটি দরদাতা প্রতিষ্ঠানের কাছ থেকে ৫ লটে এসব কম্বল কেনা হবে। প্রতিষ্ঠানগুলো হলো- মেসার্স তালুকদার অ্যান্ড কোম্পানি, স্ট্যান্ডার্ড বিজনেস লাইন, মের্সাস প্রভাতী অ্যান্ড কোম্পানি, মের্সাস কাজলা ট্রেডিং, মেসার্স তালুকদার অ্যান্ড কোম্পানি।

অতিরিক্ত সচিব আরও বলেন, আন্তর্জাতিক কোটেশনের মাধ্যমে ২০১৮-১৯ অর্থবছরের জন্য ৫০ হাজার টন গম আমদানির একটি ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রতি টনের দাম ২০১ দমমিক ৯৩ ডলার হিসাবে মোট ব্যয় হবে ১২২ কোটি ৬১ লাখ টাকা। বৈঠকে আন্তর্জাতিক কোটেশনের মাধ্যমে ২৫ হাজার টন ব্যাগড প্রিল্ড ইউরিয়া সার মোংলা বন্দরের মাধ্যমে আমদানির একটি ক্রয় প্রস্তাবও অনুমোদন দেওয়া হয়েছে বলে জানান তিনি। এতে ব্যয় হবে ৯ কোটি ২২ লাখ টাকা। এ ছাড়াও চট্টগ্রাম বন্দর দিয়ে এক লাখ টন ব্যাগড গ্রানুলার ইউরিয়া সার আমদানির অপর একটি ক্রয় প্রস্তাব অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এতে ব্যয় হবে ৩৩৪ কোটি ৫ লাখ টাকা।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে