টিটু রায় দোষী হলে শাস্তি পাবে -স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

  রংপুর প্রতিনিধি

১৫ নভেম্বর ২০১৭, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, ফেসবুকে যে স্ট্যাটাস দেওয়া হয়েছে, তা অত্যন্ত নিন্দনীয়। যাকে নিয়ে এ ঘটনা, সে টিটু রায়কে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করলে প্রকৃত ঘটনা জানা যাবে। সে যদি দোষী হয়, তা হলে তাকে আইনের আওতায় এনে কঠোর শাস্তি দেওয়া হবে। আর নির্দোষ হলে তাকে ছেড়ে দেওয়া হবে। শুধু তা-ই নয়, এ তা-বের ঘটনার মূলে যারা রয়েছে, তাদের খুঁজে বের করে শাস্তি দেওয়া হবে। গতকাল মঙ্গলবার রংপুরের পাগলাপীরে হরকলি মাদ্রাসামাঠে জেলা পুলিশ আয়োজিত সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আরও বলেন, অভিযুক্ত টিটু রায় ১০ বছর থেকে নারায়ণগঞ্জে রয়েছে। দীর্ঘদিন বাড়ির সঙ্গে তার যোগাযোগ ছিল না। তার আইডি ব্যবহার করে এটি কেউ করেছে কিনা, সে বিষয়টিও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। অপরাধী যে-ই হোক না কেন, তাকে আইনের আওতায় আসতে হবে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ শান্তি-সম্প্রীতির দেশ। এখানে ধর্ম নিয়ে যারা মানুষ খুন করে, ঘরবাড়ি জ্বালিয়ে দেয়, তাদের স্থান নেই। শত বছরের ঐতিহ্যকে লালন করে বেঁচে আছে এখানকার মানুষ। যারা এ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করার চেষ্টা করবে, তাদের কঠোরভাবে প্রতিহত করা হবে।

মন্ত্রী বলেন, মুসলমান, হিন্দু, বৌদ্ধ ও খ্রিস্টান সবার সম্মিলিত চেষ্টায় ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে এ দেশ স্বাধীন হয়েছে। আমাদের সম্প্রীতি নষ্ট করার জন্য একটি মহল রামু, ব্রাহ্মণবাড়িয়া ও ফরিদপুরের মতো রংপুরেও এ ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে। এ ধরনের ঘটনার পুনরাবৃত্তি হতে দেওয়া যাবে না। আমরা অনেক চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করেছি। একাত্তরের পরাজিত শক্তিকে আর কোনো অঘটন ঘটাতে দেব না।

যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী বীরেন শিকদার বলেন, রংপুরে যে ঘটনা ঘটেছে তা একটি মহলের ষড়যন্ত্র। এ ধরনের ষড়যন্ত্র সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় রুখতে হবে। তিনি বলেন, কোনো ধর্মেই সাম্প্রদায়িকতার স্থান নেই। প্রতিটি ধর্মেই শান্তির কথা বলা হয়েছে। রংপুরের এ ঘটনার পুনরাবৃত্তি অন্য কোথাও হতে দেওয়া যাবে না। তিনি আরও বলেন, রংপুরের এ ঘটনা শোনার পর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাদের ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি দেখতে বলেছেন।

জেলা পুলিশ সুপার মিজানুর রহমানের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংসদের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সভাপতি টিপু মুন্সি এমপি, আইজিপি একেএম শহিদুল হক, রংপুরের জেলা প্রশাসক মুহাম্মদ ওয়াহেদুজ্জামান, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান নাসিমা জামান ববি, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম রাজু, মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তুষার কান্তি ম-ল, কমিউনিটি পুলিশের সদস্য সচিব সুশান্ত ভৌমিক।

 

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে