শিক্ষক আছে শিক্ষার্থী নেই

  ঠাকুরগাঁও প্রতিনিধি

১৮ নভেম্বর ২০১৭, ০০:০০ | আপডেট : ১৮ নভেম্বর ২০১৭, ০০:৫১ | প্রিন্ট সংস্করণ

শিক্ষক আছে পর্যাপ্ত; কিন্তু শিক্ষার্থী নেই। ১৩ জন শিক্ষককের স্কুলে ছাত্রছাত্রীর উপস্থিতি তিনজন। এটি কোনো প্রতিবন্ধী ও অটিজম শিক্ষার্থীর প্রতিষ্ঠান নয়। সাধারণ শিক্ষার্থীদের একটি স্কুল। এটি হচ্ছে কেবিএম নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়। এ স্কুলটি ঠাকুরগাঁওয়ের সীমান্ত উপজেলা বালিয়াডাঙ্গীর পূর্ব বালিয়াডাঙ্গী গ্রামে অবস্থিত। এর যাত্রা শুরু ১৯৯৭ সালে। শিক্ষার্থীর অনুপাতে শিক্ষক সংখ্যা অনেক বেশি। ছাত্রছাত্রীর গড় হাজিরা প্রায় শূন্যের কোটায়। গত ১২ নভেম্বর ওই স্কুলে গিয়ে দেখা গেছে, দুই ছাত্র, এক ছাত্রী উপস্থিত আছে। এ বিষয়ে প্রধান শিক্ষক বিনোদ কুমার কু- বলেন, এখন ধান কাটার মৌসুম। তাই শিক্ষার্থীদের উপস্থিতি কম। জানা গেছে, এ স্কুলে শিক্ষককের সংখ্যা ১৩ জন। এর মধ্যে ৭ জন শিক্ষক সরকারি আর্থিক সুবিধা ভোগ করছেন। গ্রামবাসীর অভিযোগ, এই বিদ্যালয়ের শিক্ষকদের পাঠদানের দক্ষতা না থাকায় শিক্ষার্থীরা ভর্তি হতে আগ্রহী হচ্ছে না। কেউ ভর্তি হলেও লেখাপড়ার পরিবেশ না থাকায় তারা চলে যাচ্ছে অন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে। এ স্কুলে কাগজকলমে ছাত্রছাত্রীর সংখ্যা ১০৭ জন। কিন্তু বাস্তবে চিত্র ভিন্ন। এ হাল উপজেলার দারুল উলুম দাখিল মাদ্রাসা, বিশ্রামপুর দাখিল মাদ্রাসাসহ ১২-১৩টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে।

এ বিষয়ে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার আবদুর রহমান বলেন, কেবিএম নিম্ন মাধ্যমিক বিদ্যালয়সহ অন্য কয়েকটি প্রতিষ্ঠান পরিদর্শন করে সতর্ক করা হয়েছে।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে