সফল এক কোয়েল খামারি আইরিন

  আশরাফুল আলম লিটন, মানিকগঞ্জ

১৯ নভেম্বর ২০১৭, ০০:০০ | আপডেট : ১৯ নভেম্বর ২০১৭, ০১:০১ | প্রিন্ট সংস্করণ

আত্মবিশ্বাস আর উদ্যম থাকলে অনেকভাবেই আয় করা যায়। এটিই প্রমাণ করেছেন গৃহবধূ আইরিন। কোয়েল পাখির খামার করে এলাকার বেকারদের মধ্যে সাড়া জাগিয়ে নিজে হয়েছেন স্বাবলম্বী।

মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার কুস্তা গ্রামের মীর মোলায়েমের স্ত্রী আইরিন আক্তার। ১৯৯৫ সালে এসএসসি পরীক্ষায় উর্ত্তীণ হওয়ার পরই তাকে গড়তে হয় স্বামীর সংসার। আগ্রহ থাকার পরও ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী স্বামীর সংসারে পড়াশোনাটা আর চালানো সম্ভব হয়নি। সেই থেকেই আইরিনের ইচ্ছা ছিল ঘরে বসেই কিছু একটা করার।

আইরিন জানান, পত্রিকার পাতায় কোয়েল পাখির ওপর প্রতিবেদন দেখে খামার করার ইচ্ছা জাগে। সেই ধারাবাহিকতায় দুই বছর আগে নিজ বাড়িতে তিনি গড়ে তোলেন মীর কোয়েল ফার্ম। ১০০ কোয়েল পাখি দিয়ে শুরু করা তার খামারে এখন পাখির সংখ্যা ৩ হাজার। ৭ হাজার টাকার পুঁজি বেড়ে দাঁড়িয়েছে কয়েক লাখ। প্রতিমাসে তার খামারে পাখির খাবার ও ওষুধ বাবদ খরচ হয় ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকা। প্রতিমাসে তিনি প্রায় দেড় লাখ টাকার টাকার ডিম বিক্রি করে থাকেন। তার থেকে খরচ বাদ দিয়ে যা থাকে সেটুকুই তার মাসিক আয়। যশোর থেকে আনা ৩৫ টাকা দামের প্রতিটি পাখি এক মাসের মধ্যেই ডিম দিয়ে থাকে। প্রতিহালি ডিম বিক্রি হয় ১০ টাকা দরে।

তিনি জানান, কোনো রকম প্রশিক্ষণ ছাড়াই তিনি কোয়েল পাখির খামার গড়ে তোলেন। যাদের কাছ থেকে তিনি পাখি ক্রয় করেন মূলত তাদের কাছ থেকেই তিনি বিষয়টি জেনেছেন। সংসারে স্বামীকে সহযোগিতা করার জন্যই তিনি এই উদ্যোগ নিয়েছেন।

আইরিন জানান, যে শিক্ষাগত যোগ্যতা তার রয়েছে তাতে করে ভালো চাকরি করা সম্ভব নয়। তাছাড়া অনেক শিক্ষিতরাই উচ্চ শিক্ষা নিয়ে বেকার জীবনযাপন করছেন। অথচ তিনি বাড়িতে বসেই মাসে ৬০-৭০ হাজার টাকা আয় করছেন।

আইরিনের স্বামী মীর মোলায়েম জানান, তার স্ত্রী সংসারের সব কাজের পাশাপাশি খামার করে সংসারে আর্থিক সচ্ছলতা এনেছে। নিজের ক্ষুদ্র ব্যবসার কাজের ফাঁকে ফাঁকে তিনিও স্ত্রীকে খামারের কাজে সহযোগিতা করেন।

প্রতিবেশী মো. আলী জানান, আইরিন একজন নারী হয়ে খামার স্থাপন করে অর্থনৈতিক সচ্ছলতা ফিরিয়ে এনেছে। তার এমন উদ্যোগে অনেকে উৎসাহিত হবেন। তিনি বেকারদের ঘরে বসে না থেকে এমন উদ্যোগী হয়ে কাজে নেমে পড়ার পরামর্শ দেন।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে