কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তার বাংলা কিবোর্ড

  জিয়াউল ইসলাম, শাবি

১৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

মোবাইলে ভর্তি কার্যক্রম চালু, দেশের সর্বপ্রথম বাংলা সার্চ ইঞ্জিন ‘পিপীলিকা’, দেশের প্রথম বাংলায় কথা বলা রোবট-রিবো থেকে শুরু করে বাংলাদেশের আর্থসামাজিক প্রেক্ষাপটে ইতিবাচক ভূমিকা রাখা বেশ কিছু গুরুত্বপূর্ণ উদ্ভাবনীর সঙ্গে জড়িয়ে আছে শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ^বিদ্যালয়ের নাম। সম্প্রতি বিশ^বিদ্যালয়ের কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সহকারী অধ্যাপক বিশ^প্রিয় চক্রবর্তীর নেতৃত্বাধীন একটি টিম কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা সংবলিত বাংলা কিবোর্ড তৈরি করেছেন।

দুদফায় শেষ করা এই প্রজেক্টের কাজে প্রাথমিকভাবে টিমের সদস্য ছিলেন সিএসই বিভাগের শিক্ষার্থী রণিত দেবনাথ আকাশ এবং উ খ্যই নু। পরবর্তী সময়ে এর সঙ্গে যুক্ত হন একই বিভাগের শিক্ষার্থী বুদ্ধ বণিক সাগর ও গৌতম চৌধুরী। দুটি টিমেরই দলনেতা ছিলেন বিশ্বপ্রিয় চক্রবর্তী।

দৈনিক আমাদের সময়কে তিনি বলেন, এই কিবোর্ডের সব চেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বৈশিষ্ঠ্য হলোÑ এটি তার কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা দিয়ে নিজেই বুঝে ফেলবে আপনি কী লিখতে চাচ্ছেন। যেমনÑ আপনি লিখলেন ‘আমি ভাত’ আমাদের কিবোর্ড তার কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তা দিয়ে বুঝে ফেলবে যে, আপনি লিখতে চাচ্ছেন ‘আমি ভাত খাই’। সময়ের সঙ্গে কিবোর্ডের বুদ্ধি বাড়তে থাকবে। কিবোর্ড যত বুদ্ধিমান হবে আপনাকে তত কম লিখতে হবে, আপনার পরিশ্রম তত কমে যাবে।

তিনি বলেন, নতুন এই কিবোর্ডের জন্য আলাদা করে বাংলা টাইপ শিখতে হয় না। এ ছাড়া দ্রুত লেখার জন্য টাইপের পাশাপাশি ঝরিঢ়ব করে লেখার ব্যবস্থা রয়েছে এই কিবোর্ডে। ঝরিঢ়ব করে লিখলে সময় যেমন কম লাগে আবার এক হাতে টাইপিংয়ের দক্ষতাও বৃদ্ধি পায়।

তিনি আরও জানান, ভাষার মাসে কিবোর্ডটি উদ্বোধন করলেও ভবিষ্যতে এটাকে আরও উন্নত করার ইচ্ছে আছে। নতুন নতুন ফিচার সংযুক্ত করে সবার জন্য টাইপিং সহজ করতে আরও কিছু পদক্ষেপ নেওয়া হবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেন শাবিপ্রবির তরুণ এই শিক্ষক ও গবেষক।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে