জাল সনদে চাকরি অধ্যক্ষ রাধেশ্যামের বিরুদ্ধে মামলা

  মোহনগঞ্জ প্রতিনিধি

১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

জাল সনদে অধ্যক্ষ পদে চাকরি করে ৪০ লাখ ৩৭ হাজার ৪৬৪ টাকা বেতন-ভাতা উত্তোলন করে আত্মসাতের অভিযোগে রাধেশ্যাম সরকার নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে মোহনগঞ্জ থানায় মামলা করেছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। দুদকের ময়মনসিংহের সমন্বিত জেলা কার্যালয়ের সহকারী পরিচালক একেএম বজলুর রশীদ সোমবার রাতে মোহনগঞ্জ থানায় মামলাটি করেন। জাল সনদে নেত্রকোনার মোহনগঞ্জ ডিগ্রি কলেজ ও মানিকগঞ্জ জেলা সদরের গড়পাড়া হাফিজ উদ্দিন মেমোরিয়াল কলেজে চাকরি করেন অভিযুক্ত রাধেশ্যাম।

মামলা সূত্রে জানা যায়, ঢাকার নবাবগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ বালুখ- গ্রামের মৃত নরেশ চন্দ্র সরকারের ছেলে রাধেশ্যাম সরকার মানিকগঞ্জ জেলা সদরের ৫ নম্বর ওয়ার্ডের (সিদ্দিকনগর) ১০৬, পূর্ব দাশড়া (ভূতের গলি) বাসিন্দা। ১৯৮২ সালে এসএসসি ও ১৯৮৫ সালে টাঙ্গাইলের ধনবাড়ী কলেজ থেকে এইচএসসি পাস করেন তিনি। পরে ১৯৮৮ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ব্যাচেলর অব সায়েন্স (অনার্স) এবং ১৯৮৯ সালে মাস্টার অব সায়েন্স পাস করেন। কিন্তু ২০১৬ সালের ৯ মার্চ পরিদর্শন ও নিরীক্ষা অধিদপ্তরের অডিট রিপোর্টে বলা হয়, রাধেশ্যাম সরকারের পরীক্ষার সনদ সঠিক নয়। তার সনদ যাচাইকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক জানান, রাধেশ্যাম সরকারের ওই দুটি পরীক্ষার সনদ সঠিক নয় এবং এগুলো ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ইস্যু করা হয়নি। অথচ ওই জাল সনদ দিয়ে তিনি ২০১২ সালের ১ জানুয়ারি মোহনগঞ্জ ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ পদে যোগদান করেন এবং ২০১৬ সালের ২৫ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চাকরি করেন। এ সময় তিনি মোহনগঞ্জ ডিগ্রি কলেজ থেকে ২১ লাখ ৮৭ হাজার ৮৯৭ টাকা বেতন-ভাতা উত্তোলন করেন। এর আগে রাধেশ্যাম সরকার মানিকগঞ্জ জেলা সদরের গড়পাড়া হাফিজ উদ্দিন মেমোরিয়াল কলেজে ওই জাল সনদ ব্যবহার করে ১৯৯৬ সালের ১ মার্চ প্রথমে প্রভাষক পদে ও পরে ১৯৯৭ সাল থেকে অধ্যক্ষ পদে থেকে চাকরি করে ১৮ লাখ ৪৯ হাজার ৫৬৭ টাকা উত্তোলন করেন।

স্থানীয় সূত্র জানায়, মোহনগঞ্জ ডিগ্রি কলেজে রাধেশ্যাম সরকারকে নিয়োগের সময় নিয়োগ কমিটির সদস্য সচিব হিসেবে তৎকালীন ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ নরোত্তম রায় দায়িত্ব পালন করেন। জাল সনদে রাধেশ্যাম সরকারকে অধ্যক্ষ নিয়োগে তার হাত রয়েছে বলে অনেকেই মনে করেন। মোহনগঞ্জ থানার ওসি আনসারী জিন্নাৎ আলী মামলা গ্রহণের সত্যতা স্বীকার করে জানান, ওই মামলা দুদকই তদন্ত করবে।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে
close