বাহুবলে গ্রামবাসী পুলিশ সংঘর্ষ-গুলি আহত ২৫

  হবিগঞ্জ প্রতিনিধি

১৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বাহুবলে সরকারি ভূমিতে উচ্ছেদ অভিযান চলাকালে পুলিশ-গ্রামবাসী সংঘর্ষে ২৫ জন আহত হয়েছেন। তাদের মধ্যে ১০ জন গুলিবিদ্ধ বলে জানা গেছে। ঘটনার পর থেকে গ্রামবাসী ও স্থানীয় প্রশাসন মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে।

এলাকাবাসী ও প্রশাসন সূত্রে জানা যায়, বুধবার দুপুরে ওই উপজেলার সুন্দ্রাটিকি গ্রামে জেমস ফিনলে চা কোম্পানিকে দেওয়া ১৭.৫৭ একর বন্দোবস্তকৃত ভূমিতে অবৈধ ঘরবাড়ি উচ্ছেদ করতে বাহুবল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নেতৃত্বে অভিযান চালানো হয়। এ সময় গ্রামবাসী বাধা দেয়। একপর্যায়ে উচ্ছেদকর্মীদের সঙ্গে গ্রামবাসীর সংঘর্ষ বাধে। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে পুলিশ প্রথমে কয়েক রাউন্ড কাঁদানে গ্যাস ছুড়ে। পরিস্থিতির অবনতি হলে পুলিশ রবার বুলেট ও গুলিবর্ষণ করে। এতে ১০ জন গুলিবিদ্ধ হন। তারা হলেনÑ আব্দাল মিয়া, ইদ্রিস মিয়া, আবদুর রশিদ, রেণু মিয়া, জুয়েল মিয়া, হাবিব উল্লাহ, আজাদ, শাহীন মিয়া, আল আমিন, সোহেল মিয়া। গুলিবিদ্ধ আব্দাল মিয়া ( ৪৫) ও ইদ্রিস মিয়াকে (৪০) সিলেট ওসমানী মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। অন্যদের হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

বাহুবল উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. জসিম উদ্দিন জানান, সুন্দ্রাটিকি গ্রামসংলগ্ন ওই সরকারি ভূমি প্রায় ৩২ বছর আগে ৪০ বছরের জন্য জেমস ফিনলে চা কোম্পানির মালিকানাধীন রামপুর চা বাগান কর্তৃপক্ষকে লিজ দেওয়া হয়। লিজকৃত ভূমিতে অবৈধভাবে ঘরবাড়ি নির্মাণ করায় চা বাগান সম্প্রসারণের কাজ ব্যাহত হচ্ছে। তাই অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদে অভিযান চালানো হয়েছে। অন্যদিকে সুন্দ্রাটিকি গ্রামের আবদুল আওয়াল মিন্টু জানান, প্রায় ২০০ বছর ধরে এ ভূমি গ্রামবাসী গোচারণ ভূমি হিসেবে ব্যবহার করে আসছে।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে