পোশাকশিল্পে দায়িত্ব নেওয়ার অনাগ্রহে পিছিয়ে নারীকর্মীরা

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১৪ মার্চ ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বাংলাদেশের পোশাকশিল্প খাতে দায়িত্ব নেওয়ার অনাগ্রহে পদোন্নতিতে পিছিয়ে রয়েছেন নারীকর্মীরা। ইন্টারন্যাশনাল ফাইন্যান্স করপোরেশনের (আইএফসি) এক গবেষণা প্রতিবেদনে এ কথা উঠে এসেছে। প্রতিবেদনে তৈরি পোশাকশিল্পে নেতৃত্বে নারীদের পিছিয়ে থাকার জন্য শিক্ষাগত যোগ্যতা ও দক্ষতা অভাবের বিষয়টিও এসেছে।

গতকাল ঢাকায় কেয়ার বাংলাদেশ আয়োজিত ‘কর্মক্ষেত্রে লিঙ্গ সমতা : পেশাগত উন্নয়নে সাফল্য ও গতিশীলতা’ শীর্ষক এক আলোচনা অনুষ্ঠানে নিজেদের গবেষণার ফল তুলে ধরেন আইএফসির কর্মকর্তা নাবিরা রহমান। তিনি বলেন, দায়িত্বগ্রহণে অনাগ্রহের কারণে ৩১ দশমিক শূন্য ৩ শতাংশ নারীকর্মীর পদোন্নতি হয় না। শিক্ষাগত যোগ্যতার অভাবে ১৬ দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ, দক্ষতার অভাব এবং কর্মস্থলের পরিবেশ পছন্দ না করার কারণে ১২ দশমিক ৬৪ শতাংশ নারীকর্মী পদোন্নতি পান না। তা ছাড়া দীর্ঘক্ষণ কাজ না করার কারণে ৮ দশমিক শূন্য ৫ শতাংশ এবং অন্যান্য কারণে ১১ দশমিক ৪৯ শতাংশ নারীকর্মীর পদোন্নতি হয় না। আর ৫ দশমিক ৭৫ শতাংশ নারীকর্মী পদোন্নতির প্রয়োজনই মনে করেন না।

বাংলাদেশে রপ্তানি আয়ের প্রধান খাত তৈরি পোশাকশিল্পে ৪০ লাখের মতো কর্মীর অধিকাংশই নারী। তবে এ শিল্পে গুরুত্বপূর্ণ পদগুলোতে নারী অনেক কম রয়েছে। অনুষ্ঠানে আলোচকরা খাতটিতে নারীদের পেশাগত উন্নয়নের ক্ষেত্রে প্রতিবন্ধকতা এবং সেগুলো দূর করার উপায় নিয়ে আলোচনা করেন।

অনুষ্ঠানে ‘জেন্ডার এক্সপার্ট’ হিসেবে অংশ নেওয়া শামীমা পারভীন, মহিলা ও শিশুবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব মাহমুদা শারমিন বেনু, শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব আশরাফ শামীম, বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব লেবার স্টাডিজের (বিলস) নির্বাহী পরিচালক সৈয়দ সুলতান উদ্দীন আহমেদ, কেয়ার বাংলাদেশের নারীর ক্ষমতায়নবিষয়ক পরিচালক হুমায়রা আজিজ আলোচনা করেন।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে