সিসি ক্যামেরায় ধরা পড়ল দুই ঘাতকের ছবি

বাড্ডায় গুলিতে আওয়ামী লীগ নেতা নিহত

  নিজস্ব প্রতিবেদক

১৯ জুন ২০১৮, ০০:০০ | আপডেট : ১৯ জুন ২০১৮, ১১:২৭ | প্রিন্ট সংস্করণ

রাজধানীর উত্তর বাড্ডায় আওয়ামী লীগের এক নেতাকে গুলি করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। নিহত ফরহাদ আলী উত্তর বাড্ডা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। ঈদের আগের দিন গত শুক্রবার দুপুরে জুমার নামাজ পড়ে মসজিদ থেকে বের হওয়ার সময় হত্যকা-ের এ ঘটনা ঘটে। হত্যাকা-ে

অংশ নেওয়া দুই ঘাতকের ছবি ধরা পড়েছে পাশের বিল্ডিংয়ের সিসিটিভি ফুটেজে। ওই দুজনকে শনাক্ত করে গ্রেপ্তারের চেষ্টা করছে পুলিশ। তবে হত্যাকা-ের চার দিন পার হলেও গতকাল সন্ধ্যা পর্যন্ত এ বিষয়ে মামলা দায়ের হয়নি।

পুলিশ জানায়, সিসিটিভির ফুটেজ বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, দুই ঘাতক দৌড়ে পালাচ্ছে। তাদের একজন সাদা টি-শার্ট পরা, অপরজনের গায়ে ছিল লাল টি-শার্ট।

সংশ্লিষ্ট পুলিশ কর্মকর্তারা জানান, দুই ঘাতকের একজন জুয়েল, অপরজনের নাম মিরাজুল। জুয়েলকে হাতে পিস্তল নিয়ে দৌড়াতে দেখা যাচ্ছে। তবে দুজনের একেক সময় একেক নাম পাচ্ছে পুলিশ। তাই তাদের সম্পর্কে প্রাপ্ত তথ্য যাচাই-বাছাই চলছে। ওই দুই ঘাতককে গ্রেপ্তারে মাঠে নেমেছে পুলিশের একাধিক ইউনিট।

পুলিশ জানায়, জুয়েল ও মিরাজুল দুজনকেই ঘটনার বেশ কিছুদিন আগে থেকে বাড্ডা এলাকায় ঘুরাঘুরি করতে দেখা গেছে। তারা বাড্ডায় স্থায়ীভাবে বসবাস করে না মনে করছে পুলিশ।

বাড্ডা থানার পরিদর্শক (তদন্ত) নজরুল ইসলাম বলেন, ফরহাদ আলী জুমার নামাজ শেষে স্থানীয় বায়তুস সালাম জামে মসজিদ থেকে বের হচ্ছিলেন। তখন তাকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে দুর্বৃত্তরা। দ্রুত উদ্ধার করে ইউনাইটেড হাসপাতালে নেওয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক ফরহাদকে মৃত ঘোষণা করেন।

তিনটি বিষয় সামনে রেখে এই হত্যাকা-ের তদন্ত চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। তিনটি বিষয় হলোÑ ডিশ ব্যবসা নিয়ে দ্বন্দ্ব, ফুটপাতের ভাসমান দোকানের নিয়ন্ত্রণ ও কাউন্সিলর প্রার্থী হিসেবে আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন চাওয়া। এ ছাড়া আরও বেশকিছু বিষয় আমলে নিয়ে তদন্ত চলছে।

নিহত ফরহাদ আলীর ভাগ্নে হীরা ভূঁঁইয়া বলেন, আমরা এখনো সন্দেহ করছি ডিশ ব্যবসার কারণে মামাকে হত্যা করা হয়েছে।

এ বিষয়ে বাড্ডা থানার ওসি কাজী ওয়াজেদ আলী আমাদের সময়কে জানান, ভিডিও ফুটেজ থেকে পাওয়া দুই ব্যক্তির সম্পর্কে নানা ধরনের তথ্য পাওয়া যাচ্ছে। আমরা এখনো তাদের শনাক্ত করতে পারিনি। তবে খুনিদের গ্রেপ্তারে কাজ শুরু করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় সোমবার সন্ধ্যা পর্যন্ত মামলা হয়নি বলে জানান ওসি।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে