পানি ছাড়াই ১০৩ বছর!

  আমাদের সময় ডেস্ক

২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০৯:১৫ | প্রিন্ট সংস্করণ

পানির আরেক নাম জীবন; কথাটা চিরসত্য। কিন্তু ভারতের পুরুলিয়ার বৃদ্ধ শ্রীকান্ত কুইরির ক্ষেত্রে এ কথাটা একটু অন্যরকম। কারণ একশ তিন বছর বয়সী এ বৃদ্ধ পানি পান করেন না। জোর করে পানি খাওয়াতে গেলেও তিনি বমি করে দেন। তার এই অভ্যাস দেখে চিকিৎসকরা রীতিমতো অবাক।পুরুলিয়ার বাঘমু-ির বাসিন্দা শ্রীকান্ত কুইরি। ছোটবেলা থেকেই পানির প্রতি বীতরাগ তার।

তবে ঠিক কবে থেকে পানি না খেয়েই কাটাতে শুরু করেছেন তা ভুলে গেছেন। কেউ জিজ্ঞেস করলে বলেন, ‘জল তেষ্টা না পেলে খাব কী করে? প্রচণ্ড গরমেও আমার জল তেষ্টা পায় না। জোর করে খেলে বমি হয়।’

পানির প্রতি এমন অনীহার কারণে স্থানীয়রা বৃদ্ধের নাম দিয়েছেন ‘দিয়া’, যার অর্থ উইপোকা। খুব শক্তপোক্ত চেহারা তার। সকালে উঠেই তিনি নিমের ডাল দিয়ে দাঁত মাজেন। তারপর লাঠি ভর দিয়ে তিন কিলোমিটার দূরে নিজের জমি দেখতে যান। বাড়ি ফিরে চিড়া কিংবা মুড়ি দিয়ে নাশতা করেন। দুপুরে ডাল আর সবজি দিয়ে ভাত। মাছ-মাংসও খান মাঝে মাঝে। বিকাল বা রাতের খাবারেও তার একই রুটিন। তবে নিমপাতা বা উচ্ছে খেতে খুব ভালোবাসেন তিনি। কিন্তু পানির ক্ষেত্রে, একেবারে না!

তবে আশ্চর্যের বিষয়, গত ত্রিশ বছরে তিনি একবারও হাসপাতালমুখো হননি। বৃদ্ধের ছেলে নিত্য কুইরি জানান, ‘জন্ম থেকে বাবাকে কখনো পানি খেতে দেখিনি। দু-একবার শরীর খারাপ হওয়ায় ডাক্তার তাকে ওষুধ খেতে দিয়েছিল। কিন্তু সেগুলোও তিনি পানি ছাড়াই চিবিয়ে খেয়েছিলেন!

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে