হাজার খাশোগি জন্ম নেবে

- বাগদত্তার কলাম

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১৫ অক্টোবর ২০১৮, ০০:০০ | আপডেট : ১৫ অক্টোবর ২০১৮, ১০:৩৯ | প্রিন্ট সংস্করণ

‘এটা কি সত্যি, তারা জামালকে খুন করেছে? এ প্রশ্নটা একটা মুহূর্তও আমার মন থেকে সরছে না।’ লিখেছেন নিখোঁজ সাংবাদিক জামাল খাশোগির তুর্কি বন্ধু হাতিস চেঙ্গিস, যার সঙ্গে তার ঘটনার পরদিনই বিয়ে হওয়ার কথা ছিল। সৌদি রাজপ্রশাসনের কট্টর সমালোচকের বাগদত্তার একটি কলাম প্রকাশ করেছে নিউইয়র্ক টাইমস। শনিবার খাশোগির জন্মদিনে তা প্রকাশিত হয়। এতে চেঙ্গিস লিখেছেন, এক জামাল খুন হলে, জন্ম নেবে হাজার জামাল।

২ অক্টোবর তুরস্কের ইস্তানবুলে সৌদি

দূতাবাসে প্রবেশের পর থেকে আর খোঁজ মেলেনি সৌদি নাগরিক খাশোগির। তিনি গ্রেপ্তার আতঙ্কে বছরখানেক ধরে যুক্তরাষ্ট্রে স্বেচ্ছা নির্বাসনে ছিলেন।

আগের স্ত্রীকে বিচ্ছেদ করেছেন, এমন প্রত্যয়নপত্র পেতে খাশোগি সেদিন ওই দূতাবাসে গিয়েছিলেন। আর বাইরে তার জন্য অপেক্ষা করছিলেন চেঙ্গিস। নিউইয়র্ক টাইমসের কলামটি অনেকটা শোকগাথা ধাঁচে লিখেছেন তিনি। খাশোগির সঙ্গে তার শেষমুহূর্তের স্মৃতি উঠে এসেছে এ লেখায়। তিনি জানিয়েছেন, দূতাবাসে প্রবেশের আগে ভয়ের কোনো চিহ্ন দেখা যায়নি খাশোগির চোখেমুখে।

যা লিখেছেন চেঙ্গিস

আমরা যখন দূতাবাসে পৌঁছালাম, তিনি ভেতরে প্রবেশ করলেন। আমি যদি জানতাম যে, এই শেষ আমি জামালকে দেখছি, তা হলে আমিও সৌদি দূতাবাসের ভেতর ঢুকে পড়তাম। এর পর বাকিটা তো ইতিহাস : ওই ভবনের ভেতর থেকে তাকে আর হেঁটে বেরুতে দেখা যায়নি। তার সঙ্গে সঙ্গে আমিও যেন সেখানেই সব হারিয়েছি।

আজ (শনিবার) জামালের জন্মদিন। আমি আগে থেকেই একটা পার্টির কথা ভেবে রেখেছিলাম। আমাদের এখন বিবাহিত যুগল থাকার কথা ছিল।

আমি মনে করি এমনটা ঘটেনি, কিন্তু তিনি যদি মারা গিয়েই থাকেন, তা হলে আজ হাজার জামাল জন্ম নেবে। তার কণ্ঠস্বর ও চিন্তাচেতনা ছড়িয়ে পড়বে তুরস্ক থেকে সৌদি আরবে এবং বিশ্বের সব প্রান্তে।

নিপীড়ন চিরদিন স্থায়ী হয় না। জালিমরা একদিন তাদের পাপের প্রায়শ্চিত্ত করবেই।

কোন পরিণতির শিকার খাশোগি

তুরস্কের দাবি, খাশোগিকে দূতাবাসের ভেতর খুন করা হয়েছে। এ জন্য রিয়াদ থেকে প্রশিক্ষিত ‘ঘাতক দল’ পাঠানো হয়েছিল। খাশোগিকে কেটে টুকরো টুকরো করে বাক্সবন্দি করে গোপনে ওই দূতাবাস থেকে বের করা হয়েছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। কিন্তু সৌদি আরব এ ধরনের অভিযোগকে ‘ভিত্তিহীন’ বলে প্রত্যাখ্যান করেছে। তুরস্কের সঙ্গে মিলে তারাও তদন্তে নেমেছে।

খাশোগির নিখোঁজ রহস্যকে কেন্দ্র করে তুরস্ক ও পশ্চিমা মিত্রদের সঙ্গে সৌদি আরবের কূটনৈতিক ও অর্থনেতিক সম্পর্ক ব্যাপক ক্ষতির মুখে পড়েছে। যদি খাশোগির হত্যাকা-ে সৌদির হাত থাকে, তা হলে রিয়াদকে কঠোর শাস্তির হুমকি দিয়েছে ওয়াশিংটন। তবে রিয়াদ বলছে, অন্যায় কোনো পদক্ষেপ নেওয়া হলে পাল্টা জবাব দিতে পিছপা হবে না সৌদি আরব।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে