ইশতেহার : জ্বালানি খাতে প্রয়োজন

আমদানিনির্ভর জ্বালানি ব্যবহারে সক্ষম হতে হবে

  নিজস্ব প্রতিবেদক

০৭ ডিসেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক, পেট্রোবাংলার সাবেক চেয়ারম্যান ড. হোসেন মনসুর বলেন, বিদ্যুৎ ও জ্বালানি ছাড়া কোনো দেশের অর্থনীতির বিকাশ সম্ভব নয়। আমাদের অভ্যন্তরীণ জ্বালানি সম্পদ খুব একটা নেই। আমাদের বায়ুবিদ্যুৎ, জলবিদ্যুতের সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। গ্যাস ফুরিয়ে আসছে। কয়লা উত্তোলনও করা যাচ্ছে না। ফলে আমাদের অর্থনীতিকে এমনভাবে প্রস্তুত করতে হবে, যাতে আমদানিনির্ভর জ্বালানি ব্যবহারে জনগণ সক্ষম হয়। তিনি বলেন, আমাদের এলএনজি আমদানি, বিদেশ থেকে জ্বালানি তেল

আমদানি করে জ্বালানি চাহিদা পূরণ

করতে হবে। সুতরাং নির্বাচনী ইশতেহারটাও বাস্তবসম্মত হতে হবে, যাতে ভবিষ্যৎ সরকার জ্বালানি খাতে যুগোপযোগী সিদ্ধান্ত নিতে পারে।

ড. হোসেন মনসুর বলেন, আমাদের প্রচুর কয়লাসম্পদ রয়েছে। তা উত্তোলনে সিদ্ধান্ত নিতে হবে। কয়লা দিয়ে প্রাথমিক জ্বালানির চাহিদা পূরণ করা যায়। তিনি বলেন, সরকারের জ্বালানি পলিসি এমন হওয়া উচিত, যাতে কোনো সংকটেই জ্বালানি সরবরাহে কোনো ধরনের প্রতিবন্ধকতা তৈরি না হয়। একই সঙ্গে কোনো কোনো জ্বালানি আমদানিনির্ভর হওয়ায় প্রয়োজনে বর্ধিত দামে মানুষ যাতে তা ব্যবহার করতে পারে, সে ধরনের অর্থনীতি প্রস্তুত করতে হবে।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে