পোশাক রপ্তানিতে রাশিয়ায় কোটা ফ্রি সুবিধা চায় বাংলাদেশ

  নিজস্ব প্রতিবেদক

২২ জানুয়ারি ২০১৮, ০০:০০ | আপডেট : ২২ জানুয়ারি ২০১৮, ০১:১৫ | প্রিন্ট সংস্করণ

বাংলাদেশের তৈরি পোশাকের সম্ভাবনাময় বড় রপ্তানি বাজার রাশিয়া। শুল্ক ও আর্থিক লেনদেনে কিছু জটিলতার কারণে রুশ বাজারে বাংলাদেশি পণ্য প্রত্যাশানুযায়ী রপ্তানি করা যাচ্ছে না। বিশ্ববাণিজ্য সংস্থার সিদ্ধান্ত মোতাবেক রাশিয়া বাংলাদেশকে প্রায় ৭১ পণ্য রপ্তানিতে ডিউটি ফ্রি ও কোটা ফ্রি বাণিজ্য সুবিধা প্রদান করছে। কিন্তু বাংলাদেশের তৈরি পোশাক রপ্তানির ক্ষেত্রে এ বাণিজ্য সুবিধা প্রদান করা হচ্ছে না। তাই রাশিয়ায় তৈরি পোশাক রপ্তানিতে ডিউটি ও কোটা ফ্রি সুবিধা চেয়েছেন বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ। বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে বাংলাদেশে সফররত রাশিয়ার কৃষিবিষয়ক ডেপুটি মিনিস্টার লেভিন সারজে এলভোভিসসের নেতৃত্বে সাত সদস্যের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে মতবিনিময় শেষে গতকাল এসব কথা জানান তিনি।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, রাশিয়ার সঙ্গে বাণিজ্য জটিলতা দূর করতে বাংলাদেশ কিছু দিন আগে ইউরেশিয়ান ইকোনমিক কমিশনের সদস্য হওয়ার সমঝোতা চুক্তিতে স্বাক্ষর করেছে। কিছু দিনের মধ্যেই বাংলাদেশ এ কমিশনের সদস্যপদ লাভ করবে। তখন রাশিয়ার সঙ্গে বাণিজ্য করতে কোনো জটিলতা থাকবে না।

তোফায়েল আহমেদ বলেন, রাশিয়া বাংলাদেশকে তৈরি পোশাক রপ্তানিতে ডিউটি ও কোটা ফ্রি বাণিজ্য সুবিধা প্রদান করলে রপ্তানি অনেক বৃদ্ধি পাবে। রাশিয়া সহানুভূতির সঙ্গে বিষয়টি দেখার আশ্বাস দিয়েছে।

তিনি বলেন, আগামী ২০২৫ সালে ‘ওয়ার্ল্ড এক্সপো’র আয়োজক হতে চায় রাশিয়া। এ বিষয়ে আগামী নভেম্বরে সিদ্ধান্ত হবে। বাংলাদেশ এ ফোরামের সদস্য। এ বিষয়ে রাশিয়া বাংলাদেশের সমর্থন চায়। সদস্য দেশগুলো ভোট দিয়ে ওয়ার্ল্ড এক্সপোর স্থান নির্ধারণ করে থাকে। এবারে মেলার আয়োজক হতে আগ্রহী রাশিয়া, ফ্রান্স, জাপান ও আজারবাইজান।

বাণিজ্যমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের ঘনিষ্ঠ বন্ধু রাশিয়া। বিভিন্ন বিষয়ে ঢাকাকে সহায়তা দিয়ে থাকে মস্কো। রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্র নির্মাণে প্রায় ১২ বিলিয়ন মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করেছে মস্কো। এটি দেশে সবচেয়ে বড় বিদেশি বিনিয়োগ।

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে