প্রেমে সাড়া না দেওয়ায় স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণ

  নিজস্ব প্রতিবেদক, বগুড়া

২৪ জুন ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

বগুড়ার ধুনট উপজেলায় ৩ দিনের ব্যবধানে আরও এক স্কুলছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। এ ঘটনায় গত শুক্রবার রাতে ধুনট থানায় মামলা হয়েছে।

গতকাল শনিবার বেলা ১১টার দিকে ধর্ষণের আলামত পরীক্ষার জন্য ওই ছাত্রীকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিক্যাল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়।

মামলা ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার নিমগাছি ইউনিয়নের ফরিদপুর গ্রামের এক কৃষকের মেয়ে নবম শ্রেণির ওই ছাত্রীকে প্রায় ৬ মাস ধরে প্রেমের প্রস্তাব দিয়ে আসছিল একই গ্রামের প্রভাবশালী আব্দুল মজিদের বখাটে ছেলে মুকুল হোসেন (২২)। বখাটের প্রস্তাবে সাড়া দেয়নি মেয়েটি। বিষয়টি মেয়ের পরিবারের পক্ষ থেকে বখাটের অভিভাবকদের জানানো হয়। এতে ক্ষুব্ধ হয় বখাটে মুকুল। এ অবস্থায় ২১ জুন রাতে মেয়েটির বাবা-মা পাশের গ্রামে আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে যায়। এ সুযোগে রাত ১০টার দিকে বখাটে মুকুল ও তার দুই সহযোগী ঘরের দরজা ভেঙে

ভেতরে ঢোকে। এর পর ভয় দেখিয়ে মেয়েটিকে ধর্ষণ করে মুকুল। এ সময় মেয়েটির চিৎকারে প্রতিবেশীরা এগিয়ে এলে বখাটে ও তার দুই সহযোগী পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় গত শুক্রবার রাতে মেয়েটির বাবা বাদী হয়ে মুকুলের বিরুদ্ধে থানায় ধর্ষণ মামলা করেন। ধর্ষণের শিকার মেয়েটির বাবা জানান, বখাটের পরিবার মামলা না করার জন্য ভয়ভীতি দেখায়। এ কারণে থানায় মামলা করতে বিলম্ব হয়েছে।

ধুনট থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ফারুকুল ইসলাম বলেন, খবর পেয়ে শুক্রবার সন্ধ্যার দিকে স্কুলছাত্রীকে উদ্ধার করে থানা হেফাজতে নেওয়া হয়েছে। মামলা দায়েরের পর তাকে শারীরিক পরীক্ষার জন্য বগুড়া শজিমেক হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ছাড়া মামলার আসামিকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।

প্রসঙ্গত, এর তিন দিন আগে ধুনটে একই কারণে আরও এক স্কুলছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে