শোলাকিয়ায় জঙ্গি হামলা মামলার চার্জশিট দাখিল

  কিশোরগঞ্জ প্রতিনিধি

১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

চাঞ্চল্যকর শোলাকিয়া জঙ্গি হামলা মামলার চার্জশিট আদালতে দাখিল করা হয়েছে। গতকাল বুধবার বিকালে মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কিশোরগঞ্জ মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মো. আরিফুর রহমান আদালতে এ চার্জশিট দাখিল করেন।

চার্জশিটে শোলাকিয়ায় জঙ্গি হামলার ঘটনায় ২৪ জনের সম্পৃক্ততা উল্লেখ করা হয়। তাদের মধ্যে অভিযুক্ত ১৯ জন বিভিন্ন স্থানে বন্দুকযুদ্ধে নিহত হওয়ায় মামলা থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। চার্জশিটে অভিযুক্ত করা হয়েছে বাকি পাঁচজনকে। তারা হলেনÑ কিশোরগঞ্জ শহরের পশ্চিম তারাপাশা এলাকার জাহিদুল হক তানিম, গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জের রাঘবপুর এলাকার জঙ্গিনেতা জাহাঙ্গীর আলম ওরফে রাজীব গান্ধী, চাঁপাইনবাবগঞ্জের শিবগঞ্জের হাজারদিঘা গ্রামের মিজানুর রহমান ওরফে বড় মিজান, নিহত জঙ্গি শফিউলের বাড়িওয়ালা গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জের পান্থাপাড়ার আনোয়ার হোসেন

এবং কুষ্টিয়ার কুমারখালী সাদিপুর কাবলিপাড়ার জঙ্গি নেতা মো. আবদুস সবুর খান হাসান ওরফে সোহেল মাহফুজ। অভিযুক্ত এ পাঁচজনই গ্রেপ্তার হয়ে এ মামলায় কারাগারে রয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১৬ সালের ৭ জুলাই ঈদুল ফিতরের দিন শোলাকিয়া হামলার দুই বছরেরও বেশি সময় পর এ চার্জশিট দেওয়া হলো।

এ প্রসঙ্গে গতকাল বিকালে পুলিশ সুপার মো. মাশরুকুর রহমান খালেদ, বিপিএম তার কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেন। এ সময় তিনি জানান, শোলাকিয়া জঙ্গি হামলার মামলাটি একটি গুরুত্বপূর্ণ মামলা। মামলাটির তদন্তে নিবিড়ভাবে কাজ করতে হয়েছে পুলিশকে। চেকপোস্টে জঙ্গি হামলার ঘটনার নেপথ্যের মাস্টারমাইন্ড, পরিকল্পনাকারী, পরিকল্পনা বাস্তবায়নকারী, অর্থ ও অস্ত্রদাতা এবং সহযোগীদের ব্যাপারে পাওয়া তথ্য যাচাই-বাছাই করতে হয়েছে। এসব কারণে মামলাটির চার্জশিট তৈরিতে কিছুটা সময় লেগেছে।

চার্জশিটে আরও উল্লেখ করা হয়, শোলাকিয়া হামলায় খরচের যাবতীয় টাকা হুন্ডির মাধ্যমে সিরিয়া, সৌদি আরব ও পাকিস্তান থেকে আসে। এ ছাড়া ভারত থেকে আসে অস্ত্র ও গোলাবারুদ।

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা কিশোরগঞ্জ মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক মো. আরিফুর রহমান জানান, সিডিডকেটসহ ৮০৩ পৃষ্ঠার অভিযোগপত্র আদালতে জমা দেওয়া হয়েছে।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে