বিএনপিকে শোকরানা নামাজের অনুরোধ শামীম ওসমানের

  নিজস্ব প্রতিনিধি, নারায়ণগঞ্জ

২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | আপডেট : ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১১:২১ | প্রিন্ট সংস্করণ

ফাইল ছবি
সাবেক রাষ্ট্রপতি বদরুদ্দোজা চৌধুরী হাত বাড়িয়ে দেওয়ায় বিএনপি নেতাদের শোকরানা নামাজ আদায়ের অনুরোধ জানিয়েছেন আওয়ামী লীগের প্রভাবশালী নেতা ও এমপি একেএম শামীম ওসমান। তিনি বলেছেন, বিকল্পধারা নামে রাজনৈতিক দল প্রতিষ্ঠা করার অপরাধে বিএনপির হামলা থেকে সেদিন হোন্ডায় চড়ে তিনি পালাতে না পারলে আজ হয়তো বিএনপি তাকে পেত না। বিএনপি এখন সেই বদরুদ্দোজার হাত ধরে ওপরে উঠে আসার চেষ্টা করছে। তাই বিএনপির উচিত বেশি বেশি শোকরানা নামাজ আদায় করা।

জেলা আইনজীবী সমিতির অভিষেক অনুষ্ঠানে গতকাল রবিবার শামীম ওসমান এসব কথা বলেন। এর আগে জেলা আইনজীবী সমিতির ডিজিটাল বার ভবনের উদ্বোধন করেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠান শেষে জেলা বারের সভাপতি অ্যাডভোকেট হাসান ফেরদৌস জুয়েলের সভাপতিত্বে অভিষেক অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ-৫ আসনের এমপি ও বিকেএমইএ সভাপতি সেলিম ওসমান, নারায়ণগঞ্জ-১ আসনের এমপি গোলাম দস্তগীর এমপি, নারায়ণগঞ্জ-২ আসনের এমপি নজরুল ইসলাম বাবু, সংরক্ষিত আসনের এমপি ফেরদোস আরা বাবলী, আইন মন্ত্রণালয়ের সচিব আবু সালেহ শেখ মোহাম্মদ জহিরুল হক, যুগ্ম সচিব বিকাশ কুমার সাহা, পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান, জেলা প্রশাসক রাব্বি মিয়া।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় আইনমন্ত্রী বলেন, সাবেক প্রধান বিচারপতি এসকে সিনহা স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করেছিলেন। এসকে সিনহার বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগের ব্যাপারে দুদক তদন্ত করছে। তারা মামলা করলে সরকার সেখানে হস্তক্ষেপ করবে না। আইনমন্ত্রী এ সময় নারায়ণগঞ্জ আইনজীবী সমিতির বিভিন্ন সমস্যা ও দাবির ব্যাপারে আশ্বস্ত করেন।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে শামীম ওসমান এমপি বলেন, এ দেশের কিছু ‘ডক্টর-ফক্টর’ আছেন, যারা স্বপ্ন দেখছেন দেশে নতুন কিছু ঘটবে। এরা দেশের মাটিতে বসে বিদেশে ষড়যন্ত্র করছে, সরকার ও দেশের বিরুদ্ধে খেলতে চাচ্ছে। তাদের বিরুদ্ধে কেন মামলা হচ্ছে নাÑ এমন প্রশ্ন রেখে শামীম ওসমান বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে এসব ষড়যন্ত্র সমূলে উৎপাটন করা হবে। এখন আবার বি. চৌধুরী তাদের মাঝে আশার আলো জাগিয়েছেন। কিন্তু ২০১৪ সালের মতো যদি জ্বালাও-পোড়াও করে এ দেশের মানুষের শান্তি ও জানমালের ক্ষতির চেষ্টা করা হয়, তবে জনগণকে সাথে নিয়েই সেই ষড়যন্ত্র রোধ করা হবে।

অনুষ্ঠানে জেলা আইনজীবী সমিতির শত শত সাধারণ সদস্য, শিক্ষানবিশ আইনজীবীসহ জেলা আদালতের সব স্তরের কর্মকর্তা ও কর্মচারী উপস্থিত ছিলেন। তবে বিএনপিপন্থি ১১ আইনজীবী ওই অনুষ্ঠান বর্জন করে অনুপস্থিত ছিলেন বলে জানা গেছে।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে