পাঁচ মাদ্রাসাছাত্রকে যৌন হয়রানির অভিযোগ

  ফরিদপুর প্রতিনিধি

১২ জুলাই ২০১৮, ০০:০০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার ডোবরা দরবার শরিফ মাদ্রাসা ও এতিমখানার পাঁচ শিশু শিক্ষার্থীকে যৌন হয়রানির অভিযোগ পাওয়া গেছে। ওই মাদ্রাসার শিক্ষক মিজানুর রহমান শিশুদের এ যৌন হয়রানি করেছেন বলে জানা যায়। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত শিক্ষক পলাতক রয়েছেন। ডোবরা মাদ্রাসার হেফজ বিভাগের প্রথম ধাপের পাঁচ শিক্ষার্থী জানায়, ৯ জুলাই রাতে এশার নামাজ শেষে তারা তাদের কক্ষে ঘুমিয়ে পড়ে। রাত ১১টার দিকে মাদ্রাসার শিক্ষক মৌলভি মিজানুর রহমান শিক্ষার্থীদের কক্ষে ঢুকে নগ্ন করে তাদের সঙ্গে বিকৃত যৌন আচরণ শুরু করেন। একপর্যায়ে শিশু শিক্ষার্থীরা বাধা দিলেও ওই শিক্ষক জোরপূর্বক ওই আচরণ করতে থাকেন। পরে শিশুদের চিৎকারে অন্য ছাত্র ও শিক্ষকরা এগিয়ে এলে দ্রুতই মাদ্রাসা থেকে সটকে পড়েন মিজানুর রহমান। এ ঘটনার পর শিক্ষার্থীদের অভিভাবক ও এলাকাবাসীর মধ্যে তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। ভুক্তভোগী এক শিক্ষার্থীর বাবা জানান, ধর্মীয় শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে এ ধরনের কর্মকা- মেনে নিতে কষ্ট হচ্ছে। ওই শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নিতে হবে।

মাদ্রাসা পরিচালনা কমিটির সভাপতি ও অধ্যক্ষ মাওলানা খালেদ বিন নাছির বলেন, ঘটনাটি দুঃখজনক। অভিযুক্ত শিক্ষক দোষী প্রমাণিত হলে তার বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এদিকে অভিযুক্ত শিক্ষক মিজানুর রহমান পলাতক থাকায় তার বক্তব্য নেওয়া যায়নি।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে