জোহানেসবার্গ টেস্ট

শততম টেস্ট ম্যাচের সামনে আমলা

  ক্রীড়া ডেস্ক

১২ জানুয়ারি ২০১৭, ০০:০০ | আপডেট : ১২ জানুয়ারি ২০১৭, ০০:৪৪ | প্রিন্ট সংস্করণ

অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিস গতকাল সংবাদ সম্মেলনে বললেন, আমলা ১০০ টেস্ট খেলা সর্বশেষ দক্ষিণ আফ্রিকান হতে পারেন! এমন বিস্ফোরক মন্তব্য করার অবশ্যই কারণ আছে। ক্রিকেট দিনকে দিন যে পথে যাচ্ছে। এতে করে এতদিন কোন খেলোয়াড় খেলবেন কল্পনাই করা যায় না। আজ জোহানেসবার্গে দক্ষিণ আফ্রিকা ও শ্রীলংকা সিরিজের তৃতীয় ও শেষ টেস্টটি খেলতে যাচ্ছে। আমলা ১০০তম টেস্ট খেলতে নামবেন। এই সিরিজে দক্ষিণ আফ্রিকা ২-০ তে এগিয়ে রয়েছে। হোয়াইটওয়াশ এড়ানোর লড়াই শ্রীলংকার।

সম্প্রতি আমলার ব্যাট কথা বলছে না। ফর্ম একটু পড়ে গেছে। তবে স্টাইলিশ এই ডান-হাতি ওপেনার ঠিকই হাজির হয়ে যেতে পারেন ভয়ঙ্কররূপে। সেক্ষেত্রে শ্রীলংকার বিপদ আরও বাড়বে। দক্ষিণ আফ্রিকার অষ্টম ক্রিকেটার হিসেবে ১০০তম টেস্ট খেলতে যাচ্ছেন তিনি।

হাশিম আমলার ব্যক্তিত্ব বেশ সবাই উপভোগ করেন। চাপচাপ থাকেন। কঠিন চাপের মধ্যেও নির্বিকারভাবে ব্যাটিং করেছেন তিনি। দক্ষিণ আফ্রিকার কিংবদন্তি জ্যাক ক্যালিস, গ্রায়েম স্মিথ ও এবি ডি ভিলিয়ার্সও প্রশংসায় পঞ্চমুখ।

আমলা রানে নেই। সর্বশেষ ৫ টেস্টে ১৯৫ রান করেছেন। তবে ২৫টি সেঞ্চুরি রয়েছে তার। ২০১২ সালে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ৩১১ রানের অসাধারণ ইনিংস খেলেছেন তিনি।

আমলার সঙ্গে অনূর্ধ্ব-১৯ দলে খেলেছেন স্টিফেন কুক। কুক বলেন, খুবই শান্ত স্বভাবের তিনি। অনেক সময় হয় মাথা ঠিক রাখা দায়। অমন সময়েও আমলা নির্বিকারভাবে পরিস্থিতি সামাল দেন।

১২ বছর আগে আমলার টেস্ট অভিষেক হয়। শুরুর দিকে আমলার ব্যাটিং টেকনিক নিয়ে কথাও উঠেছে। ১২ মাস আগে অধিনায়কত্ব ছেড়েছেন।

ইসলাম ধর্মের প্রতি আমলার আনুগত্য প্রশংসা কুড়িয়েছে। স্টিফেন কুক বলেন, আমি প্রথমে দেখেছি মানুষ হিসেবে আমলা অনেক ভালো। আর ব্যাটসম্যান হিসেবে দুর্দান্ত।

সিরিজের প্রথম দুই টেস্টে অসাধারণ পারফরম্যান্স করেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। মাঠের পারফরম্যান্সে উজ্জ্বল ছিল প্রোটিয়ারা। তাই সিরিজের প্রথম দুই ম্যাচ হেসেখেলে জিতেছে স্বাগতিকরা। পোর্ট এলিজাবেথে প্রথম টেস্ট ২০৬ রানে এবং কেপটাউনে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট ২৮২ রানের বড় ব্যবধানে জিতে দক্ষিণ আফ্রিকা। ফলে শ্রীলংকাকে হোয়াইটওয়াশের সুযোগ এখন প্রোটিয়াদের সামনে।

আর এই সুযোগটাই কাজে লাগাতে চাইছেন দক্ষিণ আফ্রিকার অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসিস, প্রতিপক্ষকে হোয়াইটওয়াশের সুযোগ পেয়েছি আমরা। এটি কাজে লাগাতে চাই। সচরাচর এমন সুযোগ আসে না। শেষ টেস্টটি জিততে মরিয়া দলের সবাই। প্রথম দুই টেস্টের মতো খেলতে পারলে, আমাদের কেউই আটকাতে পারবে না।

এ ছাড়া আমলার রেকর্ড গড়া ম্যাচটি স্মরণীয় করে রাখার কথা বলেছেন ডু প্লেসিস, অসাধারণ রেকর্ডের সামনে দাঁড়িয়ে আমলা। ১শ টেস্ট খেলা অনেক বড় অর্জন। তার জন্য শুভ কামনা থাকল। তবে আমাদেরও কিছু কাজ থাকবে। ম্যাচটি জিততে পারলে আমলার জন্যই স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

 

"

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত
  • নির্বাচিত

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে