অবৈধ অভিবাসীর আশ্রয় নিষিদ্ধ

জাতীয় স্বার্থের দোহাই যুক্তরাষ্ট্রের # বিশেষজ্ঞদের মতে, আন্তর্জাতিক আইনের লঙ্ঘন

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১০ নভেম্বর ২০১৮, ০০:০০ | আপডেট : ১০ নভেম্বর ২০১৮, ০১:০৫ | প্রিন্ট সংস্করণ

অবৈধ অভিবাসীর ‘উপচেপড়া স্রোত’ ঠেকাতে আরও কড়া পথ বেছে নিচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র। দক্ষিণাঞ্চলীয় সীমান্ত দিয়ে দেশটিতে অবৈধ উপায়ে প্রবেশকারী অভিবাসীদের আশ্রয় প্রদানকে নিষিদ্ধ করে নতুন নিয়ম জারির প্রস্তুতি নিচ্ছে প্রশাসন। বিচার বিভাগ ও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, ‘জাতীয় স্বার্থে’ অভিবাসন ঠেকাতে পারবেন প্রেসিডেন্ট। কিন্তু বিশেষজ্ঞরা বলছেন, এ ধরনের পদক্ষেপ আন্তর্জাতিক অভিবাসননীতির লঙ্ঘন। খবর দ্য গার্ডিয়ানের।

সদ্যসম্পন্ন মধ্যবর্তী নির্বাচনের প্রচারে অভিবাসনের প্রশ্নটিকে সর্বোচ্চ প্রাধান্য দিয়েছিলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। মেক্সিকো সীমান্ত হয়ে যুক্তরাষ্ট্রের উত্তরাঞ্চলমুখী হাজারো অভিবাসনপ্রত্যাশীর ওপর আক্রমণ করা হয়েছে। অভিবাসীদের প্রতিহত করতে সীমান্তে সেনা মোতায়েনও করা হয়। অবৈধভাবে প্রবেশ করা অভিবাসীদের আশ্রয় প্রদান নিষিদ্ধ করে যৌথ বিবৃতিতে বিচার বিভাগ ও স্বরাষ্ট্র দপ্তর বৃহস্পতিবার বলেছে, যুক্তরাষ্ট্রের স্বার্থের জন্য ক্ষতিকর মনে হলে অভিবাসন ও জাতীয়তা আইনের আওতায় ‘সব ভিনদেশি নাগরিকের প্রবেশ বন্ধ’ করার ক্ষমতা প্রেসিডেন্টের রয়েছে। তাদের ওপর প্রতিবন্ধকতা আরোপের এখতিয়ারও রয়েছে তার। সে অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্র-মেক্সিকো সীমান্ত হয়ে প্রবেশের ক্ষেত্রে প্রেসিডেন্ট যদি নিষেধাজ্ঞা দেন, তবে যারা সে পথ দিয়ে অবৈধভাবে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করবে, তাদের অভিবাসনের জন্য আবেদনের সুযোগ দেওয়া হবে না। বিধানটি কার্যকর হয়নি। প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প এতে শিগিগিরই স্বাক্ষর করবেন। নতুন এ নিয়মের বিরোধিতা করেছে আমেরিকান সিভিল লিবার্টিজ ইউনিয়ন। একে ‘অবৈধ’ পদক্ষেপ বলে উল্লেখ করেছে তারা। সিভিল লিবার্টিজ ইউনিয়নের দাবি, প্রবেশ যেভাবেই হোক, যুক্তরাষ্ট্রের আইন অনুযায়ী যে কেউ অভিবাসনের জন্য আবেদন করতে পারে।

প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হওয়ার আগে এবং ক্ষমতায় আসার পরে ট্রাম্প যেসব বিষয়ে সব সময় সোচ্চার রয়েছেন, এদের মধ্যে অভিবাসন নীতি। তিনি মনে করেন, অযোগ্য মানুষের ভিড়ে তার দেশ ভয়ঙ্করভাবে ভুল পথে এগোচ্ছে।

২০১৬ সালের ৮ নভেম্বর প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী হিলারি ক্লিনটনকে হারিয়ে ‘অপ্রত্যাশিত’ জয় পান ধনকুবের ডোনাল্ড ট্রাম্প। ২০১৭ সালের ২০ জানুয়ারি যুক্তরাষ্ট্রের ৪৫তম প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নেন রিপাবলিকান এ নেতা।

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে