মোদিবিরোধী জোটে ২ প্রতিপক্ষ

  আন্তর্জাতিক ডেস্ক

১২ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:০০ | আপডেট : ১২ জানুয়ারি ২০১৯, ০০:৫০ | প্রিন্ট সংস্করণ

ভারতের লোকসভা নির্বাচনে ক্ষমতাসীনদের হটাতে মরিয়া যেন বিরোধী দলগুলো। এমনকি আঞ্চলিক শত্রুতা ভুলে এসব দল একজোট হতে চাচ্ছে মোদি সরকারকে সরাতে। বিজেপিবিরোধী এমন ঐক্যজোটের প্রথম উদাহরণ সম্ভবত দেখা যাচ্ছে উত্তর প্রদেশে। ওই রাজ্যের প্রতিপক্ষ দুই আঞ্চলিক রাজনৈতিক দল সমাজবাদী পার্টি (এসপি) ও বহুজন সমাজ পার্টি (বিএসপি) আগামী লোকসভা নির্বাচনে জোট বাঁধতে যাচ্ছে। এনডিটিভি জানিয়েছে, আজ শনিবার এসপির সভাপতি অখিলেশ যাদব ও বিএসপির প্রধান মায়াবতী জোট গঠনের ঘোষণা দিতে পারেন।

আজ লক্ষেèৗর একটি পাঁচ তারকা হোটেলে যৌথ সংবাদ সম্মেলন ডেকেছেন অখিলেশ ও মায়াবতী। এসপির সাধারণ সম্পাদক রাজেন্দ্র চৌধুরী ও বিএসপির সাধারণ সম্পাদক সতীশ চন্দ্র মিশ্র শুক্রবার এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

গত বছরের মার্চ মাসে উত্তর প্রদেশের রাজনীতির দুই যুযুধান প্রতিপক্ষের মধ্যে জোট বাঁধার কথাবার্তা শুরু হয়। ওই সময় লোকসভার তিনটি ও বিধানসভার একটি আসনের উপনির্বাচনে তারা জোট বাঁধে। এতে দুর্দান্ত ফল মেলে। বিজেপি এ জোটের কাছে সব কটিতেই হারে। ২০১৪ সালের লোকসভা নির্বাচনে বিজেপি ৭১টি আসন পায়। এসপি-বিএসপির জোট তাই আগামী নির্বাচনে বিজেপির জন্য এক মহামাথাব্যথার কারণ হয়ে উঠতে পারে।

গত সপ্তাহে দিল্লিতে অখিলেশ যাদব ও মায়াবতীর বৈঠক হয়। কংগ্রেসকে বাইরে রেখে জোট গড়া নিয়ে আলোচনা হয় উত্তর প্রদেশের দুই প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীর মধ্যে। মহাজোট নিয়ে একাধিকবার বিবৃতি দিয়েছে দুই দল।

দুই দলের সূত্রগুলো বলছে, আগামী লোকসভা নির্বাচনে ৭৮টি আসন ভাগাভাগি হবে। তবে তারা রাজ্যে কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধীর আমেথি আসন এবং তার মা সোনিয়া গান্ধীর রায়বেরিলি আসনে কোনো প্রার্থী দেবে না। কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গাল্ফ নিউজের সঙ্গে এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, ‘উত্তর প্রদেশে কংগ্রেস বিস্ময়কর কিছু জিনিস ঘটাতে পারে। উত্তর প্রদেশের জন্য কংগ্রেস অনেক শক্তিশালী।’

  • সর্বাধিক পঠিত
  • সর্বশেষ

ই-পেপার

সর্বাধিক পঠিত

  • অাজ
  • সপ্তাহে
  • মাসে